কে এই এশা? জানা গেল অনেক তথ্য!

ডেস্ক রিপোর্টঃ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কবি সুফিয়া কামাল হল ছাত্রলীগের সভাপতি ইফফাত জাহান এশার বাড়ি ঝিনাইদহে। ছাত্রলীগ নেত্রী এশা ঝিনাইদহ শহরের আরাপপুরের মো: ইসমাইল হোসেন বাদশার মেয়ে। বাদশা জেলা দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি)।

এশা ঝিনাইদহ সরকারি বালিকা বিদ্যালয় থেকে ২০১০ সালে মানবিক বিভাগ থেকে এসএসসি ও ২০১২ সালে ঝিনাইদহ সরকারি নুরুন্নাহার মহিলা কলেজ থেকে মানবিক বিভাগ নিয়ে এইচএসসি পাস করেন। এরপর ২০১২-২০১৩ শিক্ষাবর্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে দর্শন বিভাগে ভর্তি হন। বর্তমানে তিনি মাস্টার্সের শিক্ষার্থী।

সম্প্রতি কোটা পদ্ধতি সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনরত ছাত্রীদের ওপর নির্যাতন ও এক ছাত্রীর পায়ের রগ কেটে দেয়ার অভিযোগে বহিষ্কৃত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও ছাত্রলীগের পদ থেকে বহিষ্কৃত হয়েছেন তিনি। এরপরই আলোচনায় আসেন এই এশা।

ছাত্রলীগ নেত্রী এশার বাবা ইসমাইল হোসেন বাদশা গণমাধ্যমকর্মীদের বলেন, আমার মেয়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হচ্ছে তা সব মিথ্যা, ভুয়া। এটা টোটালি একটা ষড়যন্ত্র।ভিসির বাসভবনে যারা হামলা করে মিথ্যা রটিয়েছে এটাও এমন মিথ্যা অভিযোগ দেওয়া হয়েছে তার মেয়ের বিরুদ্ধে বলে দাবি করেন এশার বাবা।

এদিকে এক শিক্ষার্থীর পায়ের রগ কেটে দেয়ার অভিযোগে ছাত্রলীগ নেত্রী এশাকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্তের বিষয় নিশ্চিত করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক গোলাম রব্বানী।এর আগে তিনি এশাকে হল থেকে বহিষ্কারের আদেশ দেন।একইসাথে তাকে সুফিয়া কামাল হলের সভাপতি পদ থেকে বহিষ্কার করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।

মঙ্গলবার (১০ এপ্রিল) দিবাগত রাতে ছাত্রলীগ সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসেন স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়।