‘তুলে নেয়ার’ পর ছেড়ে দেয়া হয়েছে ৩ নেতাকে

রাজধানীর চাঁনখারপুল এলাকা থেকে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের তিন নেতাকে ‘তুলে নেয়ার’ পর ছেড়ে দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন সংগঠনের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন।

তারা হচ্ছেন- পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক নুর উল্লাহ নুর, ফারুক হাসান ও রাশেদ খান।

সোমবার (২ এপ্রিল) দুপুর ২টা ৫৫ মিনিটে হাসান আল মামুন বিডি২৪লাইভকে বলেন, ‘একটি মাইক্রোবাসে করে তুলে নেয়ার পর তাদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে। আমি তাদের কাছে যাচ্ছি।’

তাৎক্ষণিকভাবে এর চেয়ে বেশী কিছু জানাতে পারেননি হাসান আল মামুন।

এর আগে দুপুর ২টার দিকে এ তিন নেতাকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেন হাসান আল মামুন।

হাসান আল মামুন বলেন, সকাল ১১টায় আমাদের পরিষদের পক্ষ থেকে কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে সংবাদ সম্মেলন ছিল। সংবাদ সম্মেলন শেষে পরিষদের নেতারা কোটা সংস্কার আন্দোলনে আহত শিক্ষার্থীদের দেখার উদ্দেশ্যে ঢাকা মেডিকেল রওনা হই। পরে চানখারপুলের কাছাকাছি পৌঁছালে রাশেদ,ফারুক ও নুরকে সাদাপোশাকধারী ব্যক্তিরা মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে গেছে। আমি চিনি, তারা ডিবি।

তাদের কীভাবে চিনলেন—এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এর আগেও তাদের দেখেছি। তারাই নিয়ে গেছে। এসময় তাদের থেকে একটু পেছনে পড়ে যাওয়ায় তাকে অপহরণ করতে পারেনি বলে দাবি করেন হাসান আল মামুন।

কোটা সংস্কার আন্দোলনের ফেসবুক পেজেও তিনজনকে উঠিয়ে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ করা হয়েছে। একটি ভিডিও শেয়ার করে তারা দাবি করেছে, সাদা মাইক্রোবাসে তিনজনকে তুলে নেওয়া হয়।