হায়দরাবাদের জয়ে দ্যুতি ছড়ালেন সাকিব

ডেস্ক রিপোর্টঃ সানরাইজার্স হায়দরাবাদ প্রথম ম্যাচে নিজেদের ঘরের মাঠ রাজীব গান্ধী ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে খেলতে নেমে রাজস্থান রয়্যালসকে ৯ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে হারিয়েছে। এদিন আইপিএলের ১১তম আসরে নিজেদের প্রথম ম্যাচে বল হাতে দ্যুতি ছড়িয়েছেন সাকিব আল হাসান।

৪ ওভারে ২৩ রান দিয়ে ২ উইকেট তুলে নেন সাকিব। তার ৪ ওভারের বোলিংয়ে ডট বল ছিল ৯টি। প্রথম ৩ ওভারে কোনো উইকেট পাননি বিশ্ব সেরা এই অলরাউন্ডার। নিজের ৪র্থ ও শেষ ওভারে অর্থাৎ দলীয় ১৪তম ওভারে জোড়া উইকেট তুলে নেন সাকিব। রাজস্থানের রাহুল ত্রিপাঠী ও সঞ্জু স্যামসনকে আউট করেন সাকিব। এ যেন নতুন দলে সেই পুরনো সাকিব।

সোমবার (৯ এপ্রিল) টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় সানরাইজার্স হায়দরাবাদ।

নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে আইপিএলে ফিরে আসা রাজস্থানের করা ১২৫ রানের জবাব দিতে নেমে ২৫ বল হাতে রেখেই জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় সানরাইজার্স।

মূলত শিখর ধাওয়ানের মারদাঙ্গা ব্যাটিংয়ে ভর করেই এত বড় জয়ের দেখা পেল হায়দরাবাদ। ধাওয়ান ৫৭ বলে অপরাজিত ৭৭ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলেন। ১৩টি বাউন্ডারির সঙ্গে ১টি ছক্কা মারেন তিনি।

অপর প্রান্তে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন ৩৫ বলে ৩৬ রান নিয়ে অপরাজিত থাকেন। ৩টি বাউন্ডারির সঙ্গে তিনিও মারেন ১টি ছক্কার মার। তাদের অবিচ্ছিন্ন দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে আসে ১২১ রান। অবশ্য ম্যাচ শুরু দিকে মাত্র ৫ রান করে আউট হন ওপেনার ঋদ্ধিমান সাহা।

এর আগে, টস জিতে রাজস্থানকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানায় হায়দরাবাদ। ব্যাট করতে নেমে হায়দরাবাদের বোলিং তোপে মাত্র ১২৫ রান তুলতে সক্ষম হয় রাজস্থান।

এদিন ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হন শিখর ধাওয়ান।

সাকিব আল হাসান আইপিএলে ২০১১ সাল থেকে ৭ বছর কলকাতা নাইট রাইডার্সে খেলেছেন। হায়দরাবাদে এদিনই অভিষেক হলো তার। বল হাতে অবদান রেখে হায়দরাবাদে অভিষেকেও উজ্জ্বল সাকিব।